মোস্তাফিজ’ ‘দশবারে আটবারই সফল হবে….

এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ রানের নাটকীয় জয় এসেছে মোস্তাফিজুর রহমানের শেষ ওভারের বোলিং জাদুতে। রোববার আবু ধাবিতে শেষ ওভারে আফগানদের দরকার পড়ে ৮ রান। মাত্র ৪ রান খরচ করেন কাটার মাস্টার, যার দুটি আবার লেগবাই থেকে আসে। জাতীয় দলে ফেরার অপেক্ষায় থাকা পেসার তাসকিন আহমেদ মনে করেন, একই পরিস্থিতি দশবার এলে আটবারই সফল হবে মোস্তাফিজ।

সোমবার মিরপুরের একাডেমি মাঠে ঢাকা মেট্রোর অনুশীলন শেষে তাসকিন বললেন, ‘মনে-প্রাণে বিশ্বাস করছিলাম মোস্তাফিজ পারবে। কেননা ব্যাটসম্যান ওই সময় চাইবে মারতে, আর মোস্তাফিজের কাটার এমন, যদি কেউ মারার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকে তাহলে খেলা খুব কঠিন। আমি মনে করি মোস্তাফিজ ওই মাপেরই একজন বোলার। ওকে আপনি ওরকম দশটা সুযোগ বা পরিস্থিতি দেন, আটটাতেই জিতিয়ে দেবে।’

ঢাকা মেট্রোর আরেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলও আস্থা রেখেছিলেন মোস্তাফিজের উপর। সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ করা জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়কের কণ্ঠেও কাটার মাস্টারের বোলিং বন্দনা।

‘আস্থা ছিল। আমি পুরো খেলাটাই দেখেছি। ব্রেট লি ধারাভাষ্য দিচ্ছিল, তারও বিশ্বাস ছিল মোস্তাফিজ ৮ রান ডিফেন্ড করতে পারবে। আমারও আস্থা ছিল। তবে সহজ হবে না জানতাম। কারণ আমরা এ ধরণের পরিস্থিতিতে ২-৩ বার সফল হতে পারিনি। অসাধারণ বোলিং করেছে মোস্তাফিজ। ওর কাছে এমন কিছুই আশা করে দেশের মানুষ, মোস্তাফিজ ভিন্ন কিছু করবে।’

আবু ধাবিতে রোববার রাতে সুপার ফোরের দ্বিতীয় ম্যাচটি জিতে এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে বাংলাদেশ। বুধবার শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে হারাতে পারলেই ভারতের বিপক্ষে শুক্রবারের ফাইনাল খেলবে টাইগাররা।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর জয়ের পর আশরাফুল বাংলাদেশকে দেখছেন ফাইনালেই। সাবেক এ অধিনায়ক মনে করেন দারুণ বোলিং ইউনিটের সঙ্গে ব্যাটসম্যানরা যদি একটু স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে পারেন, তাহলে অলিখিত সেমিফাইনাল হয়ে ওঠা ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়েই ফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ।

‘বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস পাওয়া দরকার ছিল। শেষ ম্যাচের জয়টা আত্মবিশ্বাস যোগাবে। আমি মনে করি পাকিস্তানের বিপক্ষে জেতা সম্ভব। বোলিং ইউনিট খুব ভালো আছে। যদি ব্যাটসম্যানরা একটু স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে পারে তাহলে বাংলাদেশের খুব ভালো সম্ভাবনা থাকবে।’

রোববারের ম্যাচে শেষ ৪ ওভারে আফগানিস্তানের দরকার ছিল ৪২ রান, হাতে ৪ উইকেট। কঠিন কাজটা সহজ হয়ে আসে শেষ ওভারে। ৬ বলে দরকার হয় ৮ রান। তখনই মোস্তাফিজ ম্যাজিক। এমনকি শেষ বলে যখন ৪ রান দরকার, কাটার মাস্টার সেই বলটি ডট করেন।

Rate this post