বিশুদ্ধ পানির ব্যাপারে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে।

water

বিশুদ্ধ পানির ব্যাপারে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে।

শে পানিবাহিত রোগের প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। তাই বিশুদ্ধ পানি পানের ব্যাপারে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে। ব্যস্ত জীবনে পানি ফুটিয়ে খাওয়ার মতো সময় কম পাওয়া যায়। এ জন্য বাসা, অফিস-আদালত সব জায়গায়ই পানি বিশুদ্ধকরণ যন্ত্রের ব্যবহার বাড়ছে। বাজারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নিয়ে এসেছে পানি বিশুদ্ধ করার যন্ত্র। সেসবের কয়েকটির কথা থাকছে এখানে।

পিওরইট

পানি বিশুদ্ধ করার এই যন্ত্র বাজারে ছেড়েছে ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির হোম কেয়ারের বিপণন পরিচালক তানজিম ফেরদৌস বলেন, ইউনিলিভারের পিওরইটে সহজেই খাওয়ার পানিকে নিরাপদ করা যায়। এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে পানি বিশুদ্ধ করে। বাজারে দুই ধরনের পিওরইট রয়েছে। একটি বৈদ্যুতিক, আরেকটি বিদ্যুৎ ছাড়াই চলে। বৈদ্যুতিক পিওরইট সাত ধাপে এবং সাধারণটি চার ধাপে পানি পরিশোধন করে।

পিওরইট নানা স্তরে ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়া মুক্ত করে। এটি পানিতে থাকা লোহার মরিচা, সিসা ও বিষাক্ত উপাদান পানি থেকে সরিয়ে দূষণ মুক্ত করে। পিওরইট একটি কিটের মাধ্যমে পানি পরিষ্কার করে থাকে। একটি কিট কতটুকু পানি বিশুদ্ধ করতে পারবে সেটা সাধারণত পানির মানের ওপর নির্ভর করে। তবে সাধারণত একটি কিট দেড় হাজার লিটার পর্যন্ত পানি পরিষ্কার করতে পারে। তিন হাজার লিটার পানি বিশুদ্ধের কিটও বাজারে পাওয়া যায়। আর বিদ্যুৎ–চালিত পিওরইট এক বছরের মধ্যে পরিবর্তন করতে হবে। দুটি যন্ত্রের জন্য এটি মূলত পানি ব্যবহার তাপমাত্রা, আর্দ্রতা এবং কোন ধরনের পানি বিশুদ্ধ করা হচ্ছে তার ওপর নির্ভর করে। পিওরইট অনুমোদিত পানি বিশুদ্ধকরণ উপকরণ।

পিওরইটের দাম ৩ হাজার ৪৯৯ টাকা। বিদ্যুৎ–চালিত পিওরইটের দাম ১৫ হাজার ৫০০ থেকে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত। সারা দেশে এটি পাওয়া যায়। কেউ চাইলে ১৬৬২৭ নম্বরে (সকাল ৮টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত) ফোন করে অর্ডার দিতে পারবেন।

ড্রিঙ্কইট ওয়াটার পিউরিফায়ার

আরএফএলের পানিশোধন যন্ত্রের নাম ড্রিঙ্কইট ওয়াটার পিউরিফায়ার। বৈদ্যুতিক ও বিদ্যুৎ ছাড়া—দুই ধরনের ড্রিঙ্কইট ওয়াটার পিউরিফায়ার বাজারে আছে।
বিদ্যুৎ ছাড়া (নন ইলেকট্রিক্যাল) ওয়াটার পিউরিফায়ারের চারটি মডেল আছে বাজারে। এগুলোর পানি ধারণক্ষমতা ২০ থেকে ২৪ লিটার। দাম ২ হাজার ৪৫০ টাকা থেকে ৩ হাজার ২০০ টাকা। মডেলভেদে এগুলো ৪ হাজার থেকে ৭ হাজার লিটার পানি বিশুদ্ধ করতে পারে। এরপর কিট পরিবর্তন করতে হয়, যার দাম পড়বে ১ হাজার ৭৫ টাকা।

রিভার্স ওসমোসিস ওয়াটার পিউরিফায়ার
পাঁচ মডেলের পিউরিফায়ার রয়েছে। এটি বৈদ্যুতিক। এগুলো মডেলভেদে ঘণ্টায় ১৫ থেকে ৫০ লিটার পানি বিশুদ্ধ করতে পারে। মডেলভেদে দাম ৯ হাজার ১০০ থেকে ৩৩ হাজার টাকা। কমপক্ষে ৬ হাজার লিটার পানি পরিশোধন করতে পারে। এরপর কিট পরিবর্তন করতে হয়, যার দাম পড়বে ৫৫০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা। ওয়ারেন্টি এক বছর।

আরও আছে

রামপুরার নিপুণ ক্রোকারিজের বিক্রয় ব্যবস্থাপক মো. আলম জানান, বর্তমানে বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও নন-ব্র্যান্ডের পানি বিশুদ্ধকরণ যন্ত্র পাওয়া যাচ্ছে। ভারত, চীনসহ বিভিন্ন দেশে থেকে এগুলো আমদানি করা হয়। পানি বিশুদ্ধকরণ যন্ত্রগুলো এক-একটির পানি ধারণক্ষমতার ওপর ভিত্তি করে আকারের ভিন্নতা রয়েছে। ধারণক্ষমতার ওপর এর দাম নির্ভর করে। সাধারণত পানি বিশুদ্ধ করার যন্ত্রগুলোর ফিল্টার চার থেকে পাঁচ মাস পরপর পরিবর্তন করতে হয়। এ ধরনের ফিল্টার পেপারগুলোর দাম ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত। উন্নত প্রযুক্তির পিউরিফায়ারগুলো সাধারণত বছরে একবার পরিবর্তন করতে হয়।

যেখানে পাওয়া যাবে

ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ মার্কেট, নিউমার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, বঙ্গবন্ধু ন্যাশনাল স্টেডিয়াম মার্কেট, গুলিস্তান ইত্যাদি জায়গায় পাওয়া যাবে পানি বিশুদ্ধকরণের যাবতীয় সরঞ্জাম।

Rate this post