আইপিএলের নিলামে নেই মুস্তাফিজ, নিবন্ধন করেছেন নাঈম…

Mostafiz_Nayem

ক্রীড়া প্রতিবেদক: আগামী ২৯ মার্চ থেকে ১৯ মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বাদশ আসর।

১৮ ডিসেম্বর ভারতের জয়পুরে আইপিএলের নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল ছিল নিলামে নাম নিবন্ধন করার শেষ দিন। নিলামের জন্য ১০০৩ ক্রিকেটার নিবন্ধন করেছেন।এদের মধ্যে বিদেশি ক্রিকেটার আছে ২৩২ জন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়নি এমন ক্রিকেটারের সংখ্যা ৮০০! এর মধ্যে ভারতীয় ক্রিকেটারই আছে ৭৪৬।

আগামী ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে ফ্র্যাঞ্চাইজিরা তাদের শর্ট লিস্ট চূড়ান্ত করবে।১০০৩ থেকে মাত্র ৭০ ক্রিকেটারকে দলভুক্ত করবে ফ্র্যাঞ্চাইজি।

হংকং, নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড এবং যুক্তরাষ্ট্রের একজন করে ক্রিকেটার নিলামের জন্য নিবন্ধন করেছেন। সবথেকে বেশি ৫৯ জন, দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড় নিলামে নাম দিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার আছে ৩৫, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩৩। প্রথমবারের মতো আফগানিস্তানের ২৭জন ক্রিকেটার নিলামের জন্য নিবন্ধন করেছেন। এরপর আছে শ্রীলঙ্কা (২৮), নিউজিল্যান্ড (১৭), ইংল্যান্ড (১৪), বাংলাদেশ (১০) ও জিম্বাবুয়ে (৫)।

বাংলাদেশ হতে নিবন্ধন করা দশজনের মধ্যে নেই গতবার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলা মুস্তাফিজুর রহমান। বিসিবি আগেই বলেছে, মুস্তাফিজের বিদেশি লিগে অংশগ্রহণে কঠোর হবে। আইপিএলের পরপরই আছে ২০১৯ বিশ্বকাপ। ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে চোট নিয়ে সতর্কতার কারণেই এবারের আইপিএলে বাঁহাতি পেসার থাকছেন না।

আইপিএলে খেলার আগ্রহ দেখিয়ে নিলামে নাম দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক হওয়া নাঈম হাসান। বাংলাদেশ থেকে তার নামটাই সবথেকে বড় চমক। এছাড়া তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, ইমরুল কায়েস, আবু হায়দার ও লিটন কুমার দাশ নিবন্ধন করেছেন। সাকিব আল হাসানকে আগেই রিটেইন করেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে বিদেশি ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণে প্রভাব পড়বে এবারের আইপিএলে।অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজসহ একাধিক বোর্ড ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।


ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ২ মে থেকে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করবে। এর আগেই ক্রিকেটারদের আইপিএল ছেড়ে দেশে ফেরার কথা জানিয়েছে। ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস (ইসিবি) ক্রিকেট বোর্ড ক্রিকেটারদের ২৫ এপ্রিলের মধ্যে দেশে ফেরার অনুরোধ করেছে। ১০ মে থেকে প্রস্তুতি শুরু করবে দক্ষিণ আফ্রিকা। এর আগে ক্রিকেটাররা চলে যাবে দেশে। শ্রীলঙ্কা ৬ মের আগেই ক্রিকেটারদের রিপোর্ট করতে বলেছে। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত আইপিএলে দেখা যাবে।

বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ৫ মে শুরু হবে সিরিজটি। এর আগে শুরু হবে প্রস্তুতি। তাই দ্বাদশ আপিএলে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের দেখা যাবে দুই সপ্তাহ।

গতবারের দল থেকে ১১ ক্রিকেটারকে ছেড়ে দিয়েছে কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব। চেন্নাই সুপার কিংস নিলাম থেকে মাত্র দুজন ক্রিকেটার নিতে পারবে। ২৩ ক্রিকেটারকে তারা রিটেইন করেছে। নিলামে তাদের বাজেট মাত্র ৮.৪ কোটি রূপি। পাঞ্জাব বাদে নিলাম থেকে ক্রিকেটার দলে ভেড়াবে রাজস্থান রয়্যালস, দিল্লী ক্যাপিটালস, কলকাতা নাইট রাইডার্স।

মুস্তাফিজুর রহমানকে ছেড়ে দেওয়ায় নিলাম থেকে শুধুমাত্র একজন বিদেশি ক্রিকেটারকে দলভুক্ত করবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। নাইট রাইডার্স পাঁচ, হায়দরাবাদ তিনজন দেশি ও দুজন বিদেশি ক্রিকেটারকে দলে নিতে পারবে।

২০০৮ থেকে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস নামে আইপিএলে অংশ নিচ্ছে দিল্লির দলটি। নতুন মালিকানায় নামেও পরিবর্তন এসেছে। দিল্লি ক্যাপিটালস নতুন নামকরণ করা হয়েছে।

source : all bangla newspaper

4.4 (88%) 5 votes